শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একটানা কম্পিউটারের সামনে বসে থাকলে চোখের পাতা পড়ে না। চোখের জল শুকিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পরেই চোখ কড়-কড় করে, কখনও বা লাল হয়ে যায়। চোখ ভালো রাখবেন কীভাবে?

টানা দীর্ঘ সময় কম্পিউটার ব্যাবহারে যেসব সমস্যা হয়

  • একটানা কম্পিউটারের সামনে বসে থাকলে চোখের পাতা পড়ে না। চোখের জল শুকিয়ে যায়।
  • একটানা কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে থাকলে চোখ কাছের জিনিস দেখতে অভ্যস্ত হয়ে যায়।
  • তখন দূরের জিনিস দেখতে অসুবিধে হয়। তাতে মায়োপিয়া হয়।
  • মানে চোখের মাইনাস পাওয়ারটা বেড়ে যায়।

একটানা কম্পিউটারের সামনে বসে থাকলে চোখের পাতা পড়ে না। চোখের জল শুকিয়ে যায়। একটানা কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে থাকলে চোখ কাছের জিনিস দেখতে অভ্যস্ত হয়ে যায়। তখন দূরের জিনিস দেখতে অসুবিধে হয়। তাতে মায়োপিয়া হয়। মানে চোখের মাইনাস পাওয়ারটা বেড়ে যায়।

এখনও অনেক অফিসে ওয়ার্ক ফ্রম হোম চলছে। ৮ ঘণ্টার কর্মসময় কখন যে ১০ ঘণ্টায় পৌঁছয় তার হিসেব থাকে না। কিংবা কারও কারও ক্ষেত্রে সেই সময় সীমা আরও বেশি হয়ে যায়। তাই টানা কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে থাকতে হয় তাঁকে। আর কাজের পর অবসর সময়ে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মোবাইলে ব্যস্ত হয়ে যাই আমরা। কিছুক্ষণ পরেই চোখ কড়-কড় করে, কখনও বা লাল হয়ে যায়। চোখকে এমন ভাবে রাখতে হবে, যেন খামোকা চাপ না পড়ে। চোখ থেকে দেড় ফুট বা ৩৩ সেমি দূরে রাখতে হবে বই। আর ডিফিউস আলোয় পড়তে হবে। কম আলোয় পড়লে চোখে চাপ পড়ে। 

চোখ ভালো রাখতে করনীয়-

চোখের বিশ্রাম প্রয়োজন
আপনি যখন কম্পিউটারে কাজ করছেন, প্রতি ২ ঘণ্টা অন্তর ২০ মিনিটের একটি বিরতি নিন। সেই বিরতিতে আপনি দেওয়ালের দিকে তাকাতে পারেন। জানলা দিয়ে বাইরে তাকাতে পারেন কিংবা ছাদ ও বারান্দা থেকে ঘুরে আসতে পারেন। এই বিশ্রাম আপনার প্রয়োজন। না হলে চোখের সমস্যা থেকে শুরু করে চোখে ও মাথায় ব্যথা হতে পারে। এমনকী কোমর, পিঠে ও ঘাড়েও ব্যথা হতে পারে। বিরতি নিলে এই সমস্যা আর হবে না।

চোখ শীতল রাখুন
চোখের উপর সারাদিন চাপ পড়ে। সেই কারণে চোখ জ্বালা করার মতো সমস্যা অনেকের হয়। চোখের কোণ ফুলে যায়। এই জন্য চোখকে বিশ্রাম দেওয়া ও শীতল রাখা প্রয়োজন। এর জন্য আপনি চোখে ঠান্ডা জলের ঝাপটা দিতে পারেন। আর না হলে শসা গোল গোল করে কেটে চাপা দিয়ে শুয়ে থাকতে পারেন। চোখের উপর দেওয়ার আগে কিছুক্ষণ ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন শসার টুকরো। আর না হলে তুলো গোলাপ জলে ভিজিয়ে নিন। সেই ভেজা তুলো চোখের উপর দিয়ে রাখুন। চোখ অনেকক্ষণ আর্দ্র থাকবে।

চোখের ব্যায়াম করুন
কাজের ফাঁকে ফাঁকে চোখের ব্যায়াম করে নিন। চোখের মণি ধীরে ধীরে ঘোরান, এ পাশ ও পাশ করুন। এতে চোখের ব্যায়াম হবে। এর জন্য চোখে বা মাথায় ব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা অনেকাংশেই কম হয়ে যায়।

অন্ধকার ঘরে কম্পিউটার বা টিভি নয়
আপনি যদি কাজ করেন তাহলে ঘরের আলো জ্বেলেই ল্যাপটপ স্ক্রিনে কাজ করুন। কিংবা টিভি দেখার অভ্যাস থাকলেও আলো জ্বেলেই টিভি দেখুন। কখনও অন্ধকার ঘরে দেখবেন না। এতে চোখের উপর খুবই চাপ পড়ে।

ড্রাই আইজের সমস্যা
দীর্ঘদিন কম্পিউটারে কাজ করার পর অনেকেরই এই ড্রাই আইজের সমস্যা তৈরি হয়। চোখের ভিতর শুকনো অনুভব হয়। এই ধরনের সমস্যা এড়িয়ে চলার জন্য কাজের ফাঁকে ফাঁকে চোখে জলের ঝাপটা দিন। এছাড়াও আপনি চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন। চিকিৎসকরা আই ড্রপ নেওয়ার পরামর্শ দেন। এই ধরনের আই ড্রপ চোখকে ভালো রাখে।

অনলাইনে ডক্টর ও টেলিমেডিসিন সেবা এখন খুব সহজ

যেকোন ডাক্তারের অ্যাপয়েন্ট পেতে গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করুন 

স্বাস্থ্য বিডি মোবাইল অ্যাপ  অথবা ভিজিট করুন  স্বাস্থ্য বিডি ওয়েবসাইট এবং বিস্তারিত জানতে কল করুন +8801400-040404 নম্বরে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *