শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  • 0
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এন্টিবায়োটিক এক ধরনের ওষুধ যা আপনাকে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমন থেকে রক্ষা করে। আর এন্টিবায়োটিক এই কাজটি করে ব্যাকটেরিয়া ধ্বংসের মাধ্যমে বা তাদের বংশবৃদ্ধি রোধ করে। এন্টিবায়োটিক শব্দটির আক্ষরিক অর্থ হচ্ছে ‘ জীবনের বিরুদ্ধে (Against life)’। অর্থাৎ যেকোন ওষুধ যা আপনার শরীর এর ভিতরের জীবাণু ধ্বংস করে শাব্দিক অর্থে তাই এন্টিবায়োটিক।

কিন্তু বাস্তবে মেডিক্যাল সাইন্স এর মতে এন্টিবায়োটিক কেবল ব্যাকটেরিয়া দ্বারা সংক্রমিত রোগ গুলোর বিরুদ্ধেই সফল ভাবে কাজ করতে সক্ষম। যেমন অনেক ক্ষেত্রেই আমাদের শরীরে সংক্রমন ঘটে থাকা রোগ গুলো হয় ভাইরাস দ্বারা। আর সেক্ষেত্রে এন্টিবায়োটিক কিছুই করতে পারে না এমনকি আপনার চিকিৎসক ও আপনাকে সেসব রোগের চিকিৎসায় এন্টিবায়োটিক খেতে পরামর্শ দিবেন না। তারা আপনাকে সুস্থতার জন্য অপেক্ষা করতে বলবেন অথবা এন্টি ভাইরাল ওষুধ খেতে পরামর্শ দিবেন।


বিংশ শতাব্দীতে অ্যান্টিবায়োটিক এর আবিষ্কার মেডিসিন জগতে এনেছে অনেক পরিবর্তন। আজ যা ব্যাকটেরিয়াজনিত সংক্রমণের চিকিৎসার জন্য ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছর অ্যান্টিবায়োটিকের জন্য দেড় মিলিয়নেরও বেশি প্রেসক্রিপশন লেখা হয়।

তবে চিন্তার বিষয় হচ্ছে এন্টিবায়োটিক এর ব্যাপক ব্যাবহারের ফলে ব্যাকটিরিয়াগুলো ড্রাগ এর সাথে খাপ খাইয়ে নিতে শুরু করেছে এবং এগুলো ধ্বংশ করা আরও কঠিন হয়ে উঠছে। আর এই বিষয়টিকেই অ্যান্টিবায়োটিক রেজিসট্যান্স বলা হয়।
ধরুন আপনার শরীরে একটি সংক্রমণ বিকাশ করেছে , একটি সাধারণ মূত্রনালীর সংক্রমণ থেকে যক্ষ্মা পর্যন্ত যেকোন কিছু। এখন ভেবে দেখুনতো ডাক্তাররা কিছুই করতে পারছে না। কেননা এন্টিবায়োটিক শরীরে কাজ করছে না। এমতাবস্থায় সাধারণ মানুষ এবং চিকিৎসকরা সত্যিই অসহায় হয়ে পরেন।

এন্টিবায়োটিক রেজিসট্যান্ট থেকে বেঁচে থাকতে আমরা যা করতে পারি –
> শুধুমাত্র রেজিস্ট্রার্ড ডাক্তারদের উপর ভরসা রাখুন ।
> যদি ডাক্তার না বলে থাকেন, এন্টিবায়োটিক দরকার নেই মনে করেন, তবে পরিহার করুন।
> ভাইরাল সক্রমণের জন্য শুধু শুধু এন্টিবায়োটিক খাবেন না ।
> আপনার চিকিৎসক আপনার জন্য যে এন্টিবায়োটিকটি নির্ধারণ করে দিয়েছেন শুধুমাত্র সেটিই খাবেন ।
> শুধুমাত্র ডাক্তার এর পরামর্শ অনুযায়ী এন্টিবায়োটিক সেবন করুন।
ডোজ এড়িয়ে চলবেন না ।
> আপনার চিকিৎসকের নির্দেশনা মতো পুরো দিনগুলির জন্য এন্টিবায়োটিক সেবন করুন।
> ডাক্তার এর পরামর্শ উপেক্ষা করে পরবর্তি সময়ের জন্য এন্টিবায়োটিক সংরক্ষন করবেন না।
সূত্র : webmd.com
Link : https://www.webmd.com/a-to-z-guides/what-are-antibiotic

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *